Cloudflare কি এবং কেন ব্যবহার করবো?

প্রথমেই একটি ছোট্ট উদাহরন দিয়ে শুরু করি, যাতে করে আপনি খুব সহজেই বুঝতে পারেন যে, Cloudflare কি এবং কেন আপনি এটি ব্যবহার করবেন। কারন Cloudflare বিষয়টিও ঠিক এই রকম উদাহরেন সাথে বেশ মিল রাখে।

যখন কেউ বেশি পপুলার হয়ে যায় তখন তার অনেক শত্রু তৈরি হয়ে যায় (হিংসুক ব্যক্তি) । যার ফলে তার প্রটেকশনের জন্য গার্ড বা বডিগার্ডের প্রয়োজন হয়ে পড়ে। যারা সেই ব্যক্তির প্রতি যে কোন আক্রমন প্রতিহতো করার জন্য প্রস্তুত থাকে।

Cloudflare বিষয়টিও এমনই একটি প্রটেক্টর বা গার্ড।

তো আসুন এখন জেনে নেই Cloudflare কি, কেন এবং কিভাবে ব্যবহার করবেন।

Cloudflare কি?

Cloudflare কোন হোস্টিং বা ডোমেইন প্রভাইডার নই। এই কথাই হয়তোবা ভেবেই নিচ্ছেন যে,, তাহলে কেন Cloudflare এর প্রয়োজন? Cloudflare হোস্টিং, ডোমেইনের সুবিধা আপনাকে না দিলেও, যে সুবিধা দিবে তাতে Cloudflare ব্যবহার করার জন্য আপনাকে আগ্রহী করতে যথেষ্ট।

আমি যদি সহজ ভাষাই বলতে যায়, তবে Cloudflare একটি থার্ডপার্টি, একটি লেয়ার, একটি মাধ্যম। তবে এমন কোন থার্ডপার্টি নয় যা আপনার জন্য, আপনার ভিজিটরের জন্য ক্ষতিকর। বরং এর উল্টোটা, অর্থাৎ উপকারী থার্ডপার্টি বা মাধ্যম।

Cloudflare আপনাকে CDN, DDos Protection, Web Optimization ইত্যাদি ছাড়াও ততোধিক সুবিধা দিয়ে থাকে। যা আপনার সাইটকে দ্রুত এবং নিরাপদ রাখবে। তো, Cloudflare এমন একটি লেয়ার যা আপনার ওয়েবসাইটের জন্য বডিগার্ড হিসেবে কাজ করে থাকে।

Cloudflare কেন ব্যবহার করবেন?

Cloudflare কি, আমরা তা জানতে পারলাম। এখন যখন আমরা জানবো Cloudflare কেন ব্যবহার করবো। এতক্ষন উপরের যা আলোচনা করলাম, তাতে বুঝতে কোন ঘাটতি থাকলে এখন তা আরো পরিস্কার হয়ে যাবে, ইন্‌শাআল্লাহ্‌।

আপনাদের সুবিধার জন্য সহজ ভাষাই ছোট্ট করে বুঝাতে চাচ্ছি। মনে করুন আপনার সাইটের নাম example.com। আপনার ডোমেইন, হোস্টিং bluehost, hostgator বা godaddy এমন কোন প্রোভাইডার থেকে নেওয়া।

এখন মনে করেন, যখন কোন ভিজিটর আপনার সাইটে ভিজিট করবে, তখন সেই ভিজিটর সরাসরি আপনার সাইটে প্রবেশ করে ভিজিট করতে পারবে। এই ভাবে যেসব ভিজিটর আসবে, তারা ঠিক সরাসরি আপনার সাইট ভিজিট করবে। এতে কোন সমস্যা নাই। কিন্তু সকল ভিজিটরই প্রকৃত ভিজিটর-ই হবে এমন কোন কথা নেই। এখানে ভিজিটরের সাথে হ্যাকার, রোবট, ক্রাউলার এমন সকলেই আসতে পারে। আর তারও কিন্তু সরাসরি আপনার সাইটে ঢুকতে পারবে। যার ফলে আপনার সাইটটি ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে।

এখন এখানে যদি আপনি Cloudflare ব্যবহার করেন তবে চিত্রটি হবে ভিন্ন, কিন্তু আপনি আপনার ভিজিটর হারাবেন না। আপনার সাইটে যদি আপনি Cloudflare ব্যবহার করেন তবে সকল ভিজিটর, এ্যটাকার, রোবট, যাই বলেন না কেন। সকলে আপনার সাইটে সরাসরি ঢুকবে না। যখন কেউ আপনার সাইট example.com এ্যড্রেসবারে লিখে ভিজিট করতে চাইবে, তখন তাদেরকে আপনার হোস্টিং সার্ভারের ডেটা সেন্টারে সরাসরি না নিয়ে প্রথমে Cloudflare এ নিয়ে যাবে, তারপর তারা আপনার সাইট ভিজিট করতে পারবে।

এখন হয়তো ভাবতে পারেন এতো ঘুর প্যাচের দরকার কি? জি হ্যাঁ অবশ্যই দরকার আছে। যখন কোন সাধারন ভিজিটর আসেব তখন আপনার সাইটে খুব সহজেই তারা ভিজিট করতে পারবে। কিন্তু যখন কোন এ্যটাকার আপনার সাইটে আসবে তখন তাদেরকে Cloudflare আপনার সাইটে প্রবেশ করতে বাধা দিবে। এমন ভাবে, রোবোট ও অন্যান্যদেরকেও বাধা দিবে, যারা আপনার সাইটের জন্য সুবিধার নই।

এখন হয়তো ভাবছেন, Cloudflare কি করে বুঝবে, কে সাধারন ভিজিটর আর কে এ্যটাকার? জি হ্যাঁ সেটাও বুঝার উপায় আছে। Cloudflare এর কাছে অসংখ্য আইপি এ্যড্রেস আছে যেই সব আইপি গুলো এ্যটাকাররা ব্যবহার করে থাকে, সেই আইপি গুলো Cloudflare ব্লক করে রেখেছে। এবং যখন এমন কোন আইপি থেকে আপনার ওয়েবসাইটে কেউ ভিজিট করতে আসবে তখন তাদের একসেস Cloudflare বন্ধ করে দিবে।

নিচের ছবিটি দেখলে খুব সহজেই Cloudflare কি এবং কেন ব্যবহার করবেন তার চিত্র খুব সহজেই পরিষ্কার হয়ে যাবে।

Cloudflare কি এবং কেন

Cloudflare এর ডেটা সেন্টার সুবিধা

Cloudflare System এর ডেটা সেন্টার পৃথিবীর ৭ টি মাহাদেশের ১৫০টিরও বেশি দেশে রয়েছে। যার ফলে আপনার সাইটটি হয় ফাস্ট।

এখন কিভাবে ফাস্ট হয় সেটারও হালকা ব্যাখ্যা দিচ্ছি। ধরুন আপনার সাইটটি যাদের কাছ থেকে হোষ্টিং নিয়ে হোষ্ট করেছেন, তাদের ডেটা সেন্টার আমেরিকাতে অবস্থিত। সুতরাং আপনার সাইটে যখন কোন ভিজিটর বাংলাদেশ, ভারত থেকে ভিজিট করবে। তখন আপনার সাইট লোড নিতে একটু বেশি সময় নিবে। কারন বাংলাদেশ, ভারত থেকে আমেরিকার দুরুত্ব অনেক। তাই এখানে পিং ও বাড়বে এবং আপনার সাইট লোড নিতে সময়ও নিবে। আবার যখন আমেরিকা থেকে আপনার সাইট কেউ ভিজিট করবে, তখন বাংলাদেশ বা ভারত থেকে ভিজিট করতে গিয়ে ওয়েবসাইট লোড হতে যে সময় নিবে; তার চেয়ে বহুগুনে কম সময় লোড হতে সময় নিবে। যেহেতু আপনার সাইটের ডেটা সেন্টার আমেরিকাতেই অবস্থিত।

কিন্তু আপনি যখন আপনার সাইটে Cloudflare ব্যবহার করবেন, তখন সকল জায়গা থেকেই আপনার সাইট খুব দ্রুত ভিজিট করা যাবে। কারণ পূর্বেই বলেছি যে, Cloudflare এর ডেটা সেন্টার পৃথিবীর আনাচে-কানাচে অবস্থিত।

কেন দ্রুত ভিজিট করা যাবে?

আপনি যখন আপনার সাইটটি Cloudflare এ যোগ করবেন তখন আপনার সাইটটি আপনার ওয়েবসাইটের অপরিহার্য বিষয় গুলো রিড করে নিবে। তারপর আপনার সাইটের সকল তথ্য বিশ্বের যত জায়গায় Cloudflare এর ডেটা সেন্টার রয়েছে, সকল ডেটা সেন্টারে পাঠিয়ে দিবে। যার ফলে যখন কোন ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে চাইবে; তখন Cloudflare তার আইপি ডিটেক্ট করে সেই ভিজিটরের নিকটবর্তী Cloudflare এর ডেটা সেন্টার থেকে, আপনার সাইটটি সেই ভিজিটরের কাছে “সো” করাবে। যেমন ধরুন- যখন কোন ভিজিটর বাংলাদেশ থেকে ভিজিট করতে চাইবে তখন Cloudflare দেখবে বাংলাদেশের নিকটবর্তী কোন ডেটা সেন্টার তাদের রয়েছে। যেই ডেটা সেন্টার বাংলাদেশের খুব কাছে হবে সেই সেন্টার থেকে আপনার সাইটটি সেই ভিজিটরকে ভিউ করাবে। এই ভাবে, যে কোন দেশের ভিজিটরের ক্ষেত্রেই এমনটি হবে। যার ফলে আপনার ডোমেইনটি বিশ্বের সকল জায়গা থেকেই খুব দ্রুত ভিজিট করা যাবে।

সার্ভার সমস্যার ক্ষেত্রে সুবিধা

Cloudflare এর বহুবিধ সুবিধা রয়েছে তার মধ্যে মজার একটি সুবিধা হচ্ছে, কোন কোন সময় সার্ভারে সমস্যা দেখা দেয় যার ফলে আপনার ওয়েবসাইটি ডাউন হয়ে যায়। কিন্তু Cloudflare ব্যবহার করে থাকলে কোন কারনে আপনার সার্ভার ডাউন হলেও আপনার ওয়েবসাইট ডাউন হবে না। কারণ Cloudflare আপনার সাটের একটি ক্যাচ ধরে রাখে, যার ফলে কোন কারণে আপনার সার্ভার ফেল করলেও কোন ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে আসলে Cloudflare তার ক্যাচ থেকে আপনার ওয়েবসাইটটি সেই ভিজিটরের কাছে “সো‍” করে থাকে। নিচের স্ক্রিনসটটি দেখলে আপনার কাছে বিষয়টি আরো সহজ হয়ে যাবে।

cloudflare-benifit-when-server-problem

সার্ভেরের সমস্যার কারনে সাইটি লাইভ নেই কিন্তু সাইটটি ভিজট করতে কোন সমস্যা হচ্ছে না। কারন সাইটি Cloudflare ব্যবহার করাই এই সুবিধা পেয়েছে এবং ভিজিটরও হারানোর কোন ভয় থাকছে না। এখনে ভিজিটর Cloudflare এর ক্যাচ থেকে খুব সহজেই ভিজিট করতে পারছে। অনেক ভিজিটর হয়তো বুঝতেই পারবেনা যে, সাইটটি অফলাইনে আছে। আবার যখন সার্ভারের সমস্যা দুর হয়ে যাবে তখন ওয়েবসাইটটি আবার লাইভ “সো” করবে।

Cloudflare প্রাইসিং প্লান

Cloudflare এর চার ধরনের প্যাকেজ রয়েছে। যার মধ্যে একটি রয়েছে ফ্রি। আপনি চাইলেই ফ্রি প্যাকেজ ব্যবহার করতে পারেন। তবে ফ্রি প্যাকেজে সকল ফিচার ব্যবহারের সুবিধা পাবেন না, সেটা হয়তো বলার অপেক্ষা নেই। তবে ফ্রি ব্যবহারেও বেশ উপকার পাবেন। আপনি চাইলেই তাদের ড্যাশবোর্ড দেখতে পারেন একটি ফ্রি একাউন্ট খোলার মধ্য দিয়ে। যেখানে তাদের সকল ফিচার গুলো দেখতে পাবেন।

মন্তব্য